বিএফএফ-সমকাল বিজ্ঞান বিতর্ক বিভাগীয় পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন চাঁদপুর আল-আমিন স্কুল এন্ড কলেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনার ভয়কে জয় করে গত মাসেই শুরু হয়েছে ‘বিএফএফ-সমকাল জাতীয় বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব-২০২১’। আগামী মাসে অনুষ্ঠিত হবে দেশের সবচেয়ে বড় স্কুল পর্যায়ের এই বিতর্ক প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব। গতকাল শুক্রবার বিভাগীয় পর্যায়ে জয়ী হয়ে তাতে জায়গা করে নিয়েছে চাঁদপুরের আল আমিন স্কুল এন্ড কলেজ।

রাজধানীর পান্থপথে ড্যাফোডিল ইউনিভারসিটির মিলনায়তনে গতকাল ছুটির দিনে ঢাকা-১ বিভাগীয় প্রতিযোগিতায় দিনভর যুক্তির লড়াই লড়ে নিজ নিজ জেলা পর্যায়ে তর্কে চ্যাম্পিয়ন হয়ে আসা আটটি স্কুলের বিতার্কিরা। বিভাগীয় পর্যায়ের ফাইনালে ‘তথ্য প্রযুক্তির অবাধ ব্যবহার সামাজিক অস্থিরতা বাড়াচ্ছে’ শীর্ষক বিতর্কে মানিকগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়কে হারিয়ে চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নেয় চাঁদপুরের ক্ষুদে তার্কিকরা। সেরা তার্কিক নির্বাচিত হয় মানিকগঞ্জের হুমায়ুন কবির।

বাংলাদেশ ফিদ্ধডম ফাউন্ডেশন (বিএফএফ) পৃষ্ঠপোষকতায় এবং সমকালের সুহƒদ সমাবেশের আয়োজনে আট বছর ধরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব। এবারের উৎসবে বিশেষ সহযোগী সাধারণ জ্ঞান বিষয়ক সাময়িকী ‘কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স’। এবারের উৎসবে সারাদেশের ৫২০টি বিদ্যালয় অংশ নিয়েছে। করোনা সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ঢাকা-১ বিভাগীয় পর্যায়ের বিতর্ক প্রতিযোগিতার উ™ে^াধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএফএফ’র নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী। সম্মাণিত অতিথি ছিলেন চাঁ‎দপুরের আল আমিন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ কর্ণেল (অব.) ডা. মো. শাহাদাৎ হোসেন সিকদার।

সভাপতিত্ব করেন সমকালের সহযোগী সম্পাদক সবুজ ইউনুস। স্বাগত বক্তৃতা করেন সমকালের সহকারী স¤ক্সাদক ও সুহƒদ সমাবেশের বিভাগীয় সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম আবেদ। সঞ্চালনা করেন সমকালের জ্যেষ্ঠ সহসম্পাদক হাসান জাকির। কথা বলেন বিতর্ক বিচারক মাজেদ আজাদ।

সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, ‘বিতর্ক মানেই যুক্তি, বিজ্ঞানে মুক্তি’- এ বোধকে ছড়িয়ে দিতেই বিএফএফ ও সমকাল বিজ্ঞান বিতর্ক আয়োজন করছে। কুসংস্কারের অন্ধকার ছেড়ে দেশকে আলোর পথে নিয়ে যেতে নেতৃত্ব দেবে আজকের শিক্ষার্থীরা। তাই তাদের বিজ্ঞানমনস্ক হতে হবে।

সবুজ ইউনুস বলেছেন, সংবাদপত্র হিসেবে সমকালের কাজ খবর প্রকাশ। কিন্তু সমকাল সেখানে নিজেকে সীমাব™ব্দ রাখেনি। আগামীর সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার স্ট^পু ছড়িয়ে দিতে, শিক্ষার্থীদের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও পরমতসহিঞ্চু হিসেবে গড়ে তুলতে বিজ্ঞান বিতর্কের আয়োজন করছে।

বিভাগীয় পর্যায়ের বিতর্কে মুন্সিগঞ্জের এইচ কে উচ্চ বিশ^বিদ্যালক হারিয়ে মানিকগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, ফরিদপুরের ইশান ইনস্টিটিউটকে হারিয়ে মাদারীপুরের রাজৈর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নরসিংদীর এ কে এম হাইস্কুল এন্ড হোমসের কাজে ওয়াকওভার পেয়ে চাঁদপুরের আল আমিন স্কুল এন্ড কলেজ এবং শরীয়তপুরের আঙ্গারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়কে হারিয়ে গোপালগঞ্জের এসএম মডেল সরকারি উচ্চবিদ্যালয় সেমিফাইনালে উন্নীত হয়। সেমিফাইনালে ইশান ইনস্টিটিউশনকে হারায় মানিকগঞ্জের ছেলেরা। গোপালগঞ্জ সরকারি হারায় চাঁদপুরের তার্কিকরা।

বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়ের কৃতি তার্কিকরা। তারা হলেন হাসান মাহমুদ সম্রাট, মো. নোমান, মনিকা ইয়াসমিন, শেখ মো. আরমান, জসীম উদ্দীন, নিশাত সুলতানা, মাজেদ আজাদ, রাফিয়া রহামন, মোশাররাত তাসিময়া, ময়না আক্তার, শেখ শোয়াইব আহমেদ ও নাজিউল ইসলাম শোভন।

আজ শনিবার একই স্থানে ঢাকা-২ অঞ্চলের আঞ্চলিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এতে এতে ঢাকা মহানগরের ১৪টি স্কুলের সঙ্গে নারায়নগঞ্জ ও রাজবাড়ী জেলার চ্যাম্পিয়ন দল অংশ নেবে। আঞ্চলিক প্রতিযোগিতায় জয়ীরা উতীর্ণ হবে চূড়ান্ত হবে। আজকের আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সমকালের উপদেষ্টা সম্পাদক আবু সাঈদ খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজির অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. ফাইজ হোসাইন।

এর আগে তারা চাদপুরের জেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় গত ৪ মার্চ ৭টি দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়।

এদিকে এ অর্জনে চ্যাম্পিয়ন বিতার্কিকদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আল আমিন স্কুল এন্ড কলেজ গভনির্ং বডির সভাপতি ডা. জে আর ওয়াদুদ টিপু, দৈনিক সমকাল সুহৃদ সমাবেশের চাঁদপুর শাখার সভাপতি ডা. পীযূষ কান্তি বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম সুফিয়ান এবং সমকাল জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী।

Recommended For You

About the Author: News Room

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *