মতলবে করোনায় আক্রান্তদের পরিবারে মেয়র ও ইউএনও’র খাদ্য সহায়তা প্রদান

আক্তার হোসেন:

মতলব দক্ষিণ উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগীদের পরিবারে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী, ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফলমূল ও ঔষধপত্র পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

গতকাল১৩ জুন শনিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক ও মেয়র আওলাদ হোসেন লিটনের উদ্যোগে গৃহবন্ধী লকডাউনে থাকা এসব রোগীদের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেয়া হয়।

জানা যায়, মতলব দক্ষিণ উপজেলায় করোনা ভাইরাসে এ পর্যন্ত ৩০ জন ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে বেশিরভাগই দরিদ্র,মধ্যবিত্ত ও নিম্ন – মধ্যবিত্ত পরিবারের অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তিরা আক্রান্ত ও লকডাউনে পড়ে যাওয়ায় তারা কষ্টে দিনাতিপাত করছে। এসব পরিবারের কেউ আবার ইউএনও ও মেয়র মহোদয়কে তাদের বর্তমান পরিস্থিতির কথা জানিয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত দরিদ্র পরিবারের একাধিক সদস্য বলেন, করোনার সংক্রমণে এমনি কাজকর্ম করতে পারছি না। কখনো খেয়ে আবার কখনো না খেয়ে দিন কাটাচ্ছি। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্তের কারণে লকডাউনে পড়ে পরিবারের সবাই আয়বিহীন আতঙ্কে জীবনযাপন করছি।এবার বুঝি ঘরে অসুখে ও অভাবের তাড়নায় মরেই যাবো।

করোনায় আক্রান্তদের ঘরে ঘরে খাদ্য পৌঁছে দেয়ার কাজে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা ফারহানা আক্তার রুমা, ইউপি চেয়ারম্যান জহিরুল মোস্তফা তালুকদার, উপ- সহকারী প্রকৌশলী কামরুল হাসান,পৌরসভার কর আদায়কারী মাহমুদ হাসান জুয়েল,যুবলীগ নেতা মোঃ মহিন প্রমুখ সহযোগিতা করেন।

মেয়র আওলাদ হোসেন লিটন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ওই পরিবারগুলোর জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসহ সবজি,ডিম ও মুরগী দেয়া হয়েছে। এছাড়া এখন থেকে সার্বক্ষণিক এ পরিবারগুলোর খোঁজখবর নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক বলেন, দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনায় আক্রান্ত পরিবারগুলোকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হলো।এবার খাদ্য সামগ্রী, ফলমূলের সাথে ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী ঔষধও দেয়া হয়েছে।করোনায় আক্রান্ত অস্বচ্ছল পরিবারগুলোর সাথে আমার কথা হয়। তাদের চাহিদা অনুযায়ী খাবার দেয়া হয়েছে ও শারীরিক সুস্থতার বিষয়েও খোঁজখবর রাখছি।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *