মতলবে ভুয়া চিকিৎসক দিয়ে সিজার, হাসপাতাল সিলগালা

নেই লাইসেন্স। এরপর আবার ভুয়া চিকিৎসক দিয়ে অপারেশন ও হাসপাতাল পরিচালনা করার অপরাধে সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেঙ্গারচর বাজারস্থ ‘ছেঙ্গারচর জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগস্টিক কমপ্লেক্সে’ নামে ক্লিনিক। সেই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির মালিক সুমনা আক্তারকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

৮ জুন মঙ্গলবার দুপুরে মতলব উত্তর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফরোজা হাবিব শাপলা এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুসরাত জাহান মিথেন বলেন, ‘বিভিন্ন পত্রিকায় ছেঙ্গারচর জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক কমপ্লেক্সের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে হাসপাতালটিতে মোবাইল কোর্টের সঙ্গে অভিযানে যাই। অভিযানে হাসপাতালের লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হয় কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও ভুয়া ডাক্তার দিয়ে হাসপাতাল পরিচালনা করার প্রমাণ পাওয়া গেছে। হাসপাতালে সিজার অপারেশনের জন্য এবং চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য পর্যাপ্ত ইন্সটলমেন্টও নেই।’

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফরোজা হাবিব শাপলা বলেন, ‘হাসপাতালটির লাইসেন্স নেই এবং ভুয়া ডাক্তার দিয়ে হাসপাতাল পরিচালনা করার অপরাধে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ অনুযায়ী মালিক সুমনা আক্তারকে এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি হাসপাতালটি অনির্দিষ্টকালের জন্য সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শরিফুল হাসান জানান, মতলব উত্তর উপজেলা যেকোনো অনিয়মে ছাড় দেয়া হবে না। অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসন সব সময় সোচ্চার রয়েছে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *