মতলব উত্তরে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ

মনিরা আক্তার মনি :

জাতীয় শোক দিবসে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি দেশরতœ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি এর তত্বাবধানে, চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল এর নির্দেশনায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক বাবু সুজিত রায় নন্দির সমন্বয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ উপ-কমিটি কর্তৃক কোভিড-১৯ মোকাবেলায় মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা প্রতিরোধে ৮টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেট্রর মেশিন ও সরঞ্জামাদি বিতরণ করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১২ আগষ্ট) সকালে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুসরাত জাহান মিথেনের কাছে অক্সিজেন সিলিন্ডার হস্তান্তর করেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি সদস্য আলহাজ্ব মো. আরিফ উল্লাহ সরকার।

এ সময় চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল এর ব্যাক্তিগত সহকারি এ্যাড. লিয়াকত আলী সুমন, ছেংগারচর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান কাইয়ুম চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. রতন ফরাজী, উপজেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক রেফায়েত উল্লাহ দর্জি, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক এ্যাড. মহসিন মিয়া মানিক, ছেংগারচর পৌর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল হোসেন ফরাজী,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জামান সরকার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি রহমত উল্লাগ চৌধুরী, শরীফ উল্লাহ সরকার, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক মিয়া মো, আসাদুজ্জামান, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ওসমান গণি সিকদার, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব এ্যাড. আক্তারুজ্জামান, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক একে আজাদ, পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম সরকার, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম প্রধান’সহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আলহাজ্ব মো. আরিফ উল্লাহ সরকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সফলভাবে করোনা মোকাবিলা করছি। মানুষকে সেবা করা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের শিখিয়ে গেছেন। মানুষের জন্য রাজনীতি করাও এক ধরনের ইবাদত। পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে উন্নত জীবনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টাও ইবাদত। আজকে সারাবিশ্ব করোনায় আক্রান্ত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা কাজ করছি।

আরিফ উল্লাহ সরকার বলেন,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাবা-মা হারানোর বেদনা বয়ে বেড়ান। আবার অন্যদিকে এমন একটি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন,যার কথায় দলের নেতাকর্মীরা জীবন দিতে প্রস্তুত। সারাদেশে করোনায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্চাসেবক লীগ ও কৃষক লীগ কৃষকের ধান কেটে দিয়েছে। খাদ্য বিতরণ, সবজি বিতরণ, অ্যাম্বুলেন্স তৈরি করে রাখা, মৃত ব্যক্তির দাফন-কাফন করেছে। শেখ হাসিনা ৪০ বছরের রাজনীতিতে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। শেখ হাসিনা যতদিন বেঁচে আছে, দলের নেতাকর্মী যতদিন বেঁচে আছে— ততোদিন এই দলের ক্ষয় নেই।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *