মতলব দক্ষিণে সোহেল হত্যাকান্ডের ঘটনায় আরেক জন আটক

গোলাম সারওয়ার সেলিম:

মতলব দক্ষিণ উপজেলায় পিয়ারীখোলা গ্রামের সোহেল রানা (১৭) হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মেহেদী হাসানকে (২২) গত রবিবার ভোর রাতে তাঁর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মতলব দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার আইচ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

২৫ আগস্ট রোববার সকালে সোহেল হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মেহেদী হাসানকে উপজেলার পেয়ারীখোলা গ্রামে তাঁর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। মেহেদী পেয়ারীখোলা গ্রামের ধনু মিয়ার ছেলে। এর আগে গত সোমবার ওই মামলার অপর আসামি ফরহাদ হোসেন ওরফে খলুকে (২০) এবং গত মঙ্গলবার মো. রুবেলকে (২৮) গ্রেপ্তার করা হয়।

ফরহাদ ও রুবেলকে চাঁদপুর বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। তাঁরা পুলিশ ও আদালতের কাছে এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন। তবে বিজ্ঞ আদালত তাঁদের জবানবন্দি রেকর্ড করেননি। গ্রেপ্তার মেহেদী হাসানকে ২৫ আগস্ট দুপুরে চাঁদপুর বিচারিক হাকিমের আদালতে হাজির করা হয়।

ওসি স্বপন কুমার আইচ বলেন, মেহেদী আদালতের কাছে সোহেল হত্যাকান্ডে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। ওই জবানবন্দি বিজ্ঞ হাকিম রেকর্ডভুক্ত করেন। এতে সোহেল হত্যকান্ডের রহস্য উন্মোচিত হওয়ার দাবি করেন তিনি। ১৮ আগস্ট দুর্বৃত্তরা জবাই করে হত্যা করেন সোহেল রানাকে। এ ঘটনায় গত সোমবার (১৯ আগস্ট) রাতে সোহেলের বড় ভাই সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সোহেল রানা উপজেলার নায়েরগাঁও উত্তর ইউনিয়নের জমির হোসেন প্রধানের ছেলে। সোহেল ঢাকায় একটি আসবাবের দোকানে কাঠমিস্ত্রির কাজ করত। এর আগে এলাকায় অটোরিকশা চালাতো সে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *