মতলব বাজারে ফুটপাতের অবৈধ দোকানপাট উচ্ছেদ

মো. আকতার হোসেন:

মতলব সদর বাজারের ফলপট্টি, কাঁচা বাজার, মসজিদ মার্কেট ও রথ বাজার এলাকার রাস্তা ও ফুটপাত দখল করে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে মতলব পৌর কর্তৃপক্ষ। গতকাল ৫জুন শনিবার সকালে এ সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। দেরিতে হলেও এ উচ্ছেদের কাজ হাতে নেওয়ায় বাজারের ব্যবসায়ী ও জনসাধারণ স্বস্তি প্রকাশ করেছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সড়কের দু’পাশ প্রায় ৫/৬ফুট প্রসস্থ ফুটপাত অবৈধ দখলে। এমনকি মূল রাস্তাও দোকানপাট বসেছে। ফুটপাত দিয়ে পথচারীরা হাটতে পারছে না। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে স্থায়ী ব্যবসায়ীসহ বাজারে আসা জনসাধারণ।

দেখা গেছে, সদর বাজারের ফলপট্টি, কাঁচা বাজার সড়ক দখল করে গড়ে উঠেছে অবৈধ দোকানপাট। এছাড়া রথ বাজার এলাকায় ফুটপাতের ড্রেন ও রাস্তার কিছু অংশ দখল করে ফল, সব্জি, গার্মেন্টসসহ নানাবিধ দোকানপাট স্থায়ীভাবে বসছে। এতে অবৈধ দোকান পাটের সারির কারণে লোকজন হাটতে পারছে না। অন্যদিকে প্রয়োজনী ক্রেতা ও স্থায়ী ব্যবসায়ীরা মালামাল উঠানামার জন্য যানবাহন ব্যবহার করতে পারছে না।

বাজারের ব্যবসায়ী ও একাধিক ক্রেতা জানান, পৌরবাসীর কল্যাণে মেয়রের উচ্ছেদ অভিযানকে স্বাগত জানাই। তবে সাময়িক উচ্ছেদ করলেও একটি মহলের শেল্টারে কিছুদিন পর আবারও ফুটপাত ও রাস্তা দখল হয়ে যায়। ফলে জনসাধারণের চলাচল পূর্বের মতোই বিঘœ ঘটে। তাই প্রতি মাসে অন্তত একবার এ অভিযান তদারকি করার জন্য মেয়রের হস্তক্ষেপ চান।

মতলব বাজার বণিক ও জনকল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল সরকার বলেন, মেয়র সাহেবের এ অভিযানকে সাধুবাদ জানাই। এতে বাজারের ব্যবসায়ী ও জনসাধারনের যাতায়াতের সুবিধা হবে। তবে যারা ফুটপাতে ব্যবসা করতো তাদেরকে মেয়র সাহেবের সাথে যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়েছে।

ফুটপাত দখলমুক্ত করার সময়, মতলব পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সারোয়ার সরকার লিখন, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনিছুর রহমান আনু, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম মোহন, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পিন্টু সাহা, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ নুরুজ্জামান, কর আদায়কারী মাহমুদুল হাসান জুয়েল, মতলব থানার এসআই হাবিবুর রহমানসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

মতলব পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আওলাদ হোসেন লিটন বলেন, আমাদের ও বাজারের ইজারাদারের শর্তের বাহিরে অবৈধভাবে যারা ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে ব্যবসা করতেছিল, জনসাধারন ও যানবাহন চলাচলের সুবিধার্থে অবেধ স্থাপনা তুলে দেয়া হলো। বাজারের প্রত্যেকটি ফুটপাত দখলমুক্ত করতে পৌরসভা কাজ করছে।

Recommended For You

About the Author: News Room

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *