মতলব বাজার ব্যবসায়ীদের সাথে পৌর মেয়রের মতবিনিময়

আক্তার হোসেন:

মতলব পৌর ভবন স্থানান্তর নিয়ে মতলব বাজার বণিক ও জনকল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে পৌর মেয়রের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০ জানুয়ারি বুধবার বিকেল ৪টায় পৌর কার্যালয়ের এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতলব পৌরসভা ভবন স্থানান্তর নিয়ে মতলব বাজার বণিক ও জনকল্যাণ সমিতির উদ্যোগে গত ১১ ই জানুয়ারি ব্যবসায়ীদের সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে মতলব বাজার বণিক ও জনকল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করার আগ্রহ প্রকাশ করেন পৌর মেয়র। সেই ফলশ্রুতিতে বুধবার পৌর মেয়রের আহবানে সাড়া দিয়ে সমিতির নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করেন।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব কাজী নাসির উদ্দিন, সহ সভাপতি চন্দন সাহা, আ’লীগ নেতা কালাম মিয়াজী, প্যানেল মেয়র আবুল বাশার পারভেজ, কিশোর কুমার ঘোষ, সাবেক কাউন্সিলর শাহগিয়াস, মতলব প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী ইয়ামিন, সমিতির সহ-সভাপতি মুজিব সরকার, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান মহসিন, স্বর্ণ ব্যবসায়ী দিলীপ পাল, ব্যবসায়ী রাধা কৃষ্ণ সাহা, আব্দুল লতিফ, মোহাম্মদ রফিক, খোকন প্রধান, আব্দুল হান্নান অপু, সমিতির কোষাধ্যক্ষ কামাল বেপারী, দপ্তর সম্পাদক জামাল মিয়াজী প্রমুখ।

পৌর ভবন স্থানান্তর এবং পৌর ভবনের জন্য নির্ধারিত স্থান লেখা সাইনবোর্ড স্থাপন নিয়ে ব্যবসায়ীরা পৌর মেয়রের বক্তব্য জানতে চান। সেই সাথে বর্তমান অবস্থান থেকে পৌর ভবনটি অন্যত্র স্থানান্তর না করার জন্য পৌর মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

ব্যবসায়ীদের প্রশ্নের জবাবে পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন লিটন বলেন, পৌরসভার অর্থ দিয়েই ওই জমি ক্রয় করা হয়েছে। আর এই বিষয়টি সকলের সামনে প্রকাশ করার জন্যই সাইনবোর্ডটি বসানো হয়েছে। আমি নিজেও একজন ব্যবসায়ী, মতলব সদরেই আমি বেড়ে উঠেছি। আপনাদের ভোটে মেয়র হয়েছি, পৌরভবন স্থানান্তরের বিষয়ে পৌরবাসীর মতামতকেই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হবে। এখন যেহেতু তফসিল ঘোষণা হয়েছে তাই এই সংক্রান্ত কোনো কার্যক্রম বর্তমানে করা সম্ভব নয়।

জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে পুনরায় নৌকা প্রতীক দেন এবং আমি যদি পুনরায় পৌর মেয়র হতে পারি তাহলে অবশ্যই আপনাদের সাথে নিয়ে এই পৌরসভার অসমাপ্ত কাজগুলো সম্পন্ন করব।

মতবিনিময় সভার শেষে মতলব বাজার বণিক ও জনকল্যাণ সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব কাজী নাসির উদ্দিন বলেন, আজকের এই মতবিনিময় সভায় আমাদের কাছে পৌর ভবন স্থানান্তর নিয়ে যে ধোঁয়াশা ছিলো তা কিছুটা হলেও দূর হয়েছে। আমরা বণিকরা আশা করবো বর্তমানে যিনি পৌর মেয়র আছেন এবং আগামীতে যিনি আসবেন তিনি মতলব বাজারের ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করে বর্তমান স্থানেই পৌর ভবন রাখবেন।

Recommended For You

About the Author: News Room

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *