মহানবী (সাঃ)কে কটূক্তির প্রতিবাদে চাঁদপুরে আহলে সুন্নাতের বিক্ষোভ

মাসুদ রানা:

ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) মুখপাত্র নুপুর শর্মাসহ দুই নেতার অবমাননাকর মন্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেন বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত, চাঁদপুর জেলা শাখা।

রবিবার (১২ জুন ) বাদ আসর শহরের বাইতুল আমিন মসজিদের সামনে (শপথ চত্বর) বিক্ষোভ মিছিল পূর্বে মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত সভাপতি আল্লামা নাজমুল হক আখন্দ।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের মানববন্ধন’ ও বিক্ষোভ মিছিলটিতে সংগঠনের নেতাকর্মী ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানের উপস্থিতি ছিল নজর কাড়ার মতো। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল কে কেন্দ্র করে শহরের বিভিন্ন দিক থেকে প্রতিবাদি শ্লোগানে শ্লোগানে মিছিল নিয়ে নেতাকর্মীরা বাইতুল আমিন শপথ চত্বরে জড়ো হতে থাকে।

মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা নাজমুল হক আখন বলেন, আমাদের মহানবী সাঃ পৃথিবীতে রহমতস্বরূপ আবির্ভূত হয়েছে। যার সৃষ্টি না হলে পৃথিবীর কুল-কায়ানাত কিছুই সৃষ্টি হতো না। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ছিলেন মানব জাতির জন্য অনুকরণীয়। স্বয়ং আল্লাহ পাক ইরশাদ করেছেন, ‘নিশ্চয়ই তোমাদের জন্য রসুলের মধ্যে রয়েছে উত্তম আদর্শ। অতএব রাসূলের ইজ্জত সম্মান এর উপর আঘাত করে কেউ পৃথিবীতে টিকে থাকতে পারবে না।

তিনি আরো বলেন, ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির মুখপাত্র যেই উদ্ধত আচরণ দেখিয়েছে, তাতে পৃথীবির সকল মুসলমানদের হৃদয়ে আঘাত করা হয়েছে। অবিলম্বে চলতি সংসদ অধিবেশনে ভারতের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনতে হবে। সারা বিশ্বে ভারতের পণ্য বয়কট শুরু হয়েছে। এদেশের মানুষকে ভারতের পণ্য বর্জনের আহ্বান জানান।

এ সময় মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন ফরিদগঞ্জ চান্দ্রা দরবার শরীফের গদিনিশিন পীর হুজ্জাতুল্লা নকশেবন্দী, বাগাদী দরবার শরীফের পীর আল্লামা মাহফুজ উল্লাহ, গাছতলা দরবার শরীফের পীর আল্লামা খাজা জুবায়ের আহমেদ, জেলা কমিটির সহ-সেক্রেটারী আল্লামা মাসুদ হোসাইন, মাওলানা আনিসুর রহমান, সদর কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সানাউল্লাহ খান, পৌর কমিটির সভাপতি জহিরুল ইসলাম নয়ন, অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মুফতি কেফায়াতুল্লাহ, জাকির হোসেন মিয়াজী, অধ্যক্ষ আ,ন, মহিব উল্লাহ, মাষ্টার দেলোয়ার, ইসমাইল হোসেন, অ্যাড. মাকসুদ প্রমুখ।

মানববন্ধনটি সঞ্চালনা করেন মুফতি আবুল হাসেম মিয়াজী। মানববন্ধন শেষে শপথ চত্বর থেকে একটি বিশাল মিছিল বের হয়ে শহরের মুক্তিযোদ্ধা সড়ক হয়ে মহিলা কলেজ রোড দিয়ে পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়।

শেয়ার করুন: