মাছঘাট থেকে পুলিশ পরিচয়ে ৩০ হাজার টাকার মাছ নিয়ে উদাও প্রতারক

চাঁদপুর বড় স্টেশন মাছঘাটের মেসার্স খান এন্টারপ্রাইজ থেকে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই মুরাদ পরিচয়ে ৩০ হাজার টাকার ইলিশ মাছ নিয়ে গেল এক প্রতারক।

২০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে মেসার্স খান এন্টারপ্রাইজের স্টাফ যুবরাজকে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় টাকা দেয়ার কথা বলে নিয়ে গিয়ে কৌশলে মাছ নিয়ে পালিয়ে যায় প্রতারক।

মেসার্স খান এন্টারপ্রাইজের পরিচালক গিয়াসউদ্দিন বিপ্লব জানান,চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই মুরাদ পরিচয়ে সকালে দোকানের স্টাফ যুবরাজের কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকার ১ কেজি ওজনের ২৩ থেকে ২৪টি ইলিশ মাছ নেয়। থানায় গিয়ে টাকা পরিশোধ করার কথা বলে যুবরাজকে সাথে নিয়ে আসে প্রতারক। চাঁদপুর সদর মডেল থানার পেছনের গেইটের কাছে রিক্সা রেখে ক্যান্টিনের সামনে মাছগুলো রাখে প্রতারক। পরে আরোও ১০টি মাছ লাগবে বলে যুবরাজকে মাছঘাটে পাঠিয়ে দিয়ে মাছ নিয়ে প্রতারক পালিয়ে যায়। পরে বিষয়টি যুবরাজ আমাকে (দোকানের মালিক) জানালে থানায় আসার আগেই প্রতারক মাছ নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশিদকে অবহিত করলে তিনি থানার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখেন। মাছ নিয়ে পালিয়ে যাওয়া বাদামী রংয়ের গেঞ্জি ও জিন্স প্যান্ট পরিহিত ছিলেন।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশিদ জানান,চাঁদপুর সদর মডেল থানায় এসআই মুরাদ নামের কেউ নেই। প্রতারকের বিষয়ে কোন তথ্য পেলে পুলিশকে সহায়তা করার অনুরোধ জানান তিনি। এ বিষয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম চাঁদপুর মডেল থানা ফেসবুক পেজ থেকে এ বিষয়ে একটি ঘোষণা করা হয়েছে।

শেয়ার করুন: