মা হত্যা করিয়েছে প্রিয়াকে

নিজস্ব প্রতিবেদক:

শাহরাস্তির আলোচিত নওরোজ আফরিন প্রিয়ার হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। প্রিয়ার মা তাহমিনা সুলতানা রুমির অবৈধ সম্পর্কের বাধা দেয়ায় প্রেমিক হান্নানকে দিয়েই খুন করা হয়েছে প্রিয়াকে। শাহরাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল মান্নান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল মান্নান আরো জানান, পুলিশ এ হত্যাকাণ্ডের বাদী প্রিয়ার মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে প্রিয়ার মা রুমি খুনের সত্যতা স্বীকার করেন। অফিসার ইনচার্জ জানান, আজ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কার্তিকের আদালতে ১৬৪ ধারায় প্রিয়ার মা তাহমিনা সুলতানা রুমির জবানবন্দি নেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার রায়শ্রী দক্ষিণ ইউনিয়নের আহাম্মদনগর ছোট পোদ্দার বাড়িতে ১ সন্তানের জননী নওরোজ আফরিন প্রিয়াকে (২১) কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। প্রিয়া প্রবাসী ইসমাইল হোসেনের একমাত্র মেয়ে। তার স্বামীর বাড়ি কুমিল্লায়। স্বামী কাইরুজ্জামান চৌধুরী হৃদয় কুমিল্লায় একটি পোল্ট্রি ফার্মে চাকুরি করেন। নিহত প্রিয়ার আবরীন জামান উম্মে আনহার নামে ১৮ মাস বয়সী একটি শিশুসন্তান রয়েছে।

ঘটনার সময় নিহতের মা তাহমিনা সুলতানা রুমি প্রিয়ার মেয়ে আনহার জন্যে ঔষধ আনতে পাশের বাড়িতে স্থানীয় গ্রাম্য চিকিৎসক গৌরাঙ্গের কাছে গিয়েছেলেন বলে মামলায় উল্লেখ করেছেন। সেখান থেকে ঘরে ফিরে তিনি প্রিয়ার রক্তাক্ত লাশ দেখতে পান।

ঘটনার পরদিন প্রিয়ার মা তাহমিনা সুলতানা রুমি শাহরাস্তি মডেল থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে ঘটনার সময় রাত ৭টা ৫ মিনিট হতে ৮টা ৩০ মিনিটের মধ্যবর্তী যে কোনো সময়কে উল্লেখ করা হয়েছে। এ সময় অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতকারী বা দুষ্কৃতকারীরা গোপনে ঘরে প্রবেশ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে প্রিয়াকে হত্যা করে চলে যায় মর্মে উল্লেখ করা হয়েছে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *