মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলায় প্রদীপ প্রজ্জলন ও সাংস্কৃতিক

নিজস্ব প্রতিবেদক :

এসো মিলি মুক্তির মোহনায় শ্লোগান কে হৃদয়ে ধারন করে ৮ ডিসেম্বর মাসব্যাপী মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদ্ধোধন করা হয়। এবছর চাঁদপুরে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা গৌরব ৩০ বছরে পদার্পণ করেছে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী কে উৎসর্গ করে বিজয় মেলার সকল কার্যক্রম করা হচ্ছে । উদ্ধোধনি দিন সন্ধ্যায় মাসব্যাপি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সূচনা কারা হয়।

সূচনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন স্টিয়ারিং কমিটির সভাপতি যুদ্ধাহত মুক্তিযুদ্ধা এম এ ওয়াদুদ, বিজয় মেলার চেয়ারম্যান অ্যাডঃ বদিউজ্জামান কিরণ, মহাসচিব হারুন আল রশিদ।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সূচন করতে গিয়ে এম এ ওয়াদুদ বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলায় এসেছেন তারা স্বাধীনতাকে হৃদয়ে ধারন ও স্মৃতিচারন করেছে দেশের ক্ষ্যাতিমান ব্যাক্তিরা করেছে। তা থেকে আমাতের প্রজম্ম স্বাধীনতার ইতিহাস জানতে পেরেছে।

প্রতিদিন বিজয় মঞ্চে নাটক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে থাকে। এ বছর স্বাধীনতার সূবর্নজয়ন্তি ও মুজিব জম্মশতবার্ষিকী উদযাপন করা হচ্ছে। আজকে বিজয় মেলার উদ্ধোধন করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপুমনি এমপি।

পরে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটে চাঁদপুর জেলা শাখা মনোঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করে রূপালী চম্পক, কৃষ্ণা সাহা, ইতু চক্রবর্তি, রুমা সরকার, ডানা দেবনাথ,মৃনাল সরকার, রিয়া চক্রবর্তী, লিটন, শাওন সাথি মজুমদার হ আরো অনেকে। নৃত্য পরিবেশন করে নৃত্যধারা ও নৃত্যাঙ্গনের শিল্পীরা।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *