মুজিববর্ষে চাঁদপুরে ১১৫ গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে নতুন ঘর

মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী হাসিনা কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবাররকে জমি ও গৃহপ্রদান সংক্রান্ত বিষয়ে চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের প্রেসব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। চাঁদপুর জেলায় ১১৫ গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে নতুন ঘর

২১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এই প্রেসব্রিফিং অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক বেগম অঞ্জনা খান মজলিশ।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( রাজস্ব) অসিম চন্দ্র বনিকের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত, গোলাম কিবরিয়া জীবন, সাবেক সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন, সাবেক সাধারণ সমম্পাদব সোহেল রুশদী, চাঁদপুর ফটোজার্নালিস্ট এসোশিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কেএম মাসুদ প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বেগম অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন, বাংলাদেশের একজন মানুষ গৃহহীন থাকবে না। শুধু তাই নয় এই ঘোষণা বাস্তবায়নে ইতিমধ্যে তিনি সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। তিনি দেশের মানুষকে ভালোবাসেন বলেই তিনি এই উদ্যোগটি হাতে নিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই সুন্দর উদ্যোগটি বাস্তবায়নে হোক এটি আমরা সকলেই চাই।

জেলা প্রশাসক বলেন, এই প্রকল্পের আওতায় যারা জমি এবং ঘর পারছেন তারা যাতে এটি বিক্রি করতে না পারে, সে বিষয়ে আমাদের সার্বক্ষণিক মনিটরিং থাকবে।

উল্লেখ্য চাঁদপুর জেলায় ১১৫টি পরিবার ভূমি এবং ঘর পাচ্ছে। এর মধ্যে চাঁদপুর সদর উপজেলায় ৪০, মতলব দক্ষিন উপজেলায় ২৫, মতলব উত্তর উপজেলায় ৫, শাহরাস্তি উপজেলায় ১৫, হাজীগঞ্জ উপজেলায় ৫, হাইমচর উপজেলায় ২০টি মিলিয়ে ১১৫ টি।

এছাড়া মতলব দক্ষিণ উপজেলার চর পাথালিয়া আশ্রয়ন প্রকল্পে সাতাশটি পেরেকের ১৩৫ টি পরিবারের মধ্যে ৪৫টি পরিবারকে পূর্ণবাসন করার নিমিত্তে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে আরও ৪৫ গৃহনির্মাণ করা হয়েছে। এই ৪৫ টি মিলিয়ে সর্বমোট নির্মিত ১৬০টি কবুলীয়ত সম্পাদনা, নামজারিমূলে খতিয়া সৃজন, সালামি আদায় সম্পন্ন হয়েছে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *