যুক্তিসঙ্গত দাবি প্রধানমন্ত্রী সহজেই পূরণ করেন : শিক্ষামন্ত্রী

আন্দোলন নয়, বরং যে কোনো যুক্তিসঙ্গত দাবি প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরলে তিনি সহজেই পূরণ করেন বলে উল্লেখ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

প্রধানমন্ত্রীকে ‘শিক্ষা ও শিক্ষকবান্ধব মানুষ’ আখ্যা দিয়ে দীপু মনি বলেন, শিক্ষা ক্যাডারের অপ্রাপ্তি ও দাবিদাওয়াগুলোও প্রধানমন্ত্রীর কাছে যথাযথভাবে তুলে ধরা হবে৷

রোববার (২৫ এপ্রিল) ঢাকা কলেজে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আ. ন. ম. নজীব উদ্দিন খান খুররম অডিটোরিয়ামে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সবাই একযোগে কাজ করে সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসতে হবে। সবাইকে একসঙ্গে নিয়ে কাজ করতে চাই। শিক্ষা ক্যাডারের সব সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। কর্মকর্তা পদায়নে যথাযথ গ্রেড পদ্ধতি কার্যকরসহ নানাবিধ সমস্যা আমাদের সামনে এসেছে৷ এসব সমস্যা দূর করতে সবার কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়নে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দিকনির্দেশনা দিয়েছিলেন, শিক্ষা কমিশন গঠন করেছিলেন। তার স্বপ্নের শিক্ষাব্যবস্থা গড়তে অনেক কিছুই বাস্তবায়নের অপেক্ষায়। আমরা সেটি সম্পূর্ণরূপে বাস্তবায়ন করবো।

বাংলাদেশকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে এগিয়ে নিতে শিক্ষাই একমাত্র মূল উপাদান উল্লেখ করেন শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগামী দিনে যে জায়গায় বাংলাদেশকে নিয়ে যেতে চাই সেখানে পৌঁছার সবচেয়ে বড় হাতিয়ার শিক্ষা। শিক্ষার মূল কারিগর শিক্ষক। আমি নিজেও একজন শিক্ষকের সন্তান হিসেবে অত্যন্ত গর্বিত। আশা করি আপনাদের সবাইকে নিয়ে আমরা আমাদের কাঙ্ক্ষিত জায়গায় পৌঁছাতে পারবো।

কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে শিক্ষকের আর্থ-সামাজিক নিরাপত্তা অত্যাবশ্যক বলেও এসময় উল্লেখ করেন তিনি।

ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সভাপতি ও মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (কলেজ ও প্রশাসন) বিভাগের পরিচালক প্রফেসর মো. শাহেদুল খবির চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. কামাল হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ।

ইফতার মাহফিলে সারাদেশের বিভিন্ন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ, শিক্ষকসহ বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির নবনির্বাচিত নেতারা অংশ নেন।

শেয়ার করুন: