লাশ রেখে বাড়ী ছেড়ে গেছে সবাই

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে করোনা উপসর্গে নিহত আবুল কালামের (৫৫) লাশ বাড়ীতে রেখে সবাই দূরে সরে গেছে। নিহত আবুল কালাম উপজেলার ২নং ইউনিয়নের বাখরপাড়া গ্রামের পুরান বাড়ীর মৃতু আবদুল মতিনের ছেলে।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, নিহত আবুল কালাম সকালে বাড়ীতে করোনা উপসর্গে মারা গেছেন বলে এলাকাবাসি ফোনে জানিয়েছে। তার মৃতদেহ বাড়ীতে ঘরের আঙ্গিনায় পড়ে থাকলেও কেউ ধরছেনা। থানায় খবর আসার পর আমি মৃতদেহ দাফনের ব্যবস্থা করতেছি।

তিনি জানান, শুক্রবার সকাল থেকে হাজীগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে ৩জন মারা গেছেন। আবুল কালামসহ ৪জন হলো। নিহতদের উপজেলা দাফন কমিটির প্রধান মাওলানা জুবায়েরের নেতৃত্বে যথাযথ নিয়ম মেনে দাফন করা হচ্ছে। বিকেলের পর আবুল কালামের দাফন সম্পন্ন হবে।

হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়া জানান, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি আমাকে জানানোর পর আমি ইসলামীক ফাউন্ডেশন হাজীগঞ্জ উপজেলার সুপারভাইজারকে বিষয়টি দ্রুত পদক্ষেপ নিতে বলি।
তিনি বলেন, হাজীগঞ্জ উপজেলায় যদি কোথাও মৃত ব্যক্তির দাফনে সমস্যা হয়, তাহলে সাথে সাথে আমাকে ফোনে জানালে প্রশাসনিকভাবে ব্যবস্থা নেবো।

সকালে নিহত আরো ৩জন হলেন, পৌর যুবদলের সাবেক আহবায়ক আব্দুল আউয়াল, বাকিলা ইউনিয়নের বিএনপি নেতা মোবাশ্বের মোল্লার মেয়ে মিথিলা, ও ৬নং বড়কল ইউনিয়নের এন্নাতলি গ্রামের গ্রামের দুলাল মিয়াজী। এর মধ্যে করোনাভাইরাসে ঢাকা মেডিকেলে মিথিলা, এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে আব্দুল আউয়াল সর্দার ও দুলাল মিজি নিজ বাড়ীতে মৃত্যুবরণ করেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *