শারীরিক প্রতিবন্ধী আনুর স্বপ্ন পুড়ে ছাই

শারীরিক প্রতিবন্ধী আনোয়ার হোসেন আনুর স্বপ্ন পুড়ে ছাই হয়ে গেছে আগুনে। কৈশোরে দুটি পা হারানোর পর কাপড় ও কসমেটিক্সের ব্যবসা শুরু করেন তিনি। এক সময় ভালো দোকানি হিসেবে এলাকায় প্রতিষ্ঠা পান তিনি। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে একরাতের আগুনে জীবনে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার সেই স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে। এখন পথে বসার উপক্রম তার।

শুক্রবার ভোর রাতে মাত্র আধা ঘণ্টার আগুনে আনোয়ার হোসেন ওরফে আনুর স্বপ্নের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কয়েক লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ঘটনাটি ঘটে হাজীগঞ্জ উপজেলার মালীগাঁও বাজারে।

ক্ষতিগ্রস্ত আনোয়ার হোসেন আনু জানান, দীর্ঘ দিন থেকে মালীগাঁও বাজারে সাদিয়া ভ্যারাইটিজ ষ্টোর এন্ড ক্লথ ষ্টোর নামে একটি দোকান পরিচালনা করছিলেন তিনি। অন্য দিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতে দোকার বন্ধ করে বাড়ি ফিরে যান আনু। শুক্রবার ভোরে তার কাছে সংবাদ পৌঁছে আগুনে তার দোকান পুড়ে গেছে।

তিনি আরো জানান, ভোরে বাজারে এসে দেখেন দোকানে ভিতর থেকে ধোঁয়ার কুণ্ডলী বের হচ্ছে। পরে দোকানের সার্টার খুলে দেখেন সব মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আনু জানান দোকানে ১৪ লাখ টাকার কাপড়, ২ লাখ টাকার জুতা, ২ লাখ টাকার কসমেটিকস, ১ টি সেলাই মেশিন ৪ হাজার টাকা, আসবাবপত্র ৪ লাখ টাকা বেশ কিছু নগদ টাকাসহ প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী বাজারের অপর ব্যবসায়ী ইব্রাহীম মিয়া জানান, ভোরে আগুন জ্বলতে দেখে মালিককে সংবাদ দেন তিনি।

এদিকে বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনা শুনেছি। একই সঙ্গে প্রশাসনকে ঘটনাটি জানানো হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে আনোয়ার হোসেন আনু মালীগাঁও গ্রামের হাজী বাড়ির আবুল হাসেমের ছেলে তিনি। তিন সন্তানের বাবা আনু ৯ বছর বয়স থেকেই শারীরিক প্রতিবন্ধী। তারপর অনেক কষ্টে জীবন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার স্বপ্ন দেখেন তিনি। কিন্তু আগুনের কাছে তাও এখন শেষ।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *