শিক্ষকদের বেতন উন্নতিকরণে সরকার কাজ করছেন : জেলা প্রশাসক

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরে বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি (বাকশিস) চাঁদপুর জেলা শাখার সম্মেলন ১১ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ১০ টায় চাঁদপুর রোটারী ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন উদ্বোধন করেন ও অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি, কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি ও কিংবদন্তি শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ আসাদুল হক।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য দেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।

জেলা প্রশাসক বলেন, আমি একজন শিক্ষক পরিবারের সদস্য। তাই আমি শিক্ষকদের চিন্তাভাবনা সম্পর্কে জানি। একজন শিক্ষক স্বামীর জন্য গর্ববোধ করি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি শিক্ষাব্যবস্থার উন্নতিকরনের জন্য কাজ করছেন।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষকদের বেতন গ্রেড উন্নতিকরণে সরকার কাজ করছেন। শিক্ষকদের আগে অনেক ভাতা ছিল না, এখন বর্তমান সরকার অনেক ভাতা যোগ করছেন।আমাদেরকে পুরো জাতিকে নিয়ে চিন্তা করতে হবে, তাই সঠিক পরিকল্পনার প্রয়োজন। আমাদেরকে মানসিক ও দৈহিক পরিবর্তন করতে হবে।

জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে জাতীয় ও সংগঠনের পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সম্মেলন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি,কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি ও কিংবদন্তি শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ আসাদুল হক প্রধান অতিথি চাঁদপুরের মান্যবর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ ও বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ ড.আলমগীর কবির পাটওয়ারী সহ চাঁদপুরের সকল সদস্যগণ।
শিক্ষকদের

চাঁদপুর জেলা বাকশিসের সভাপতি অধ্যক্ষ আজহারুল কবির , সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মেজবাহ উদ্দিন ভূইয়া

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ও শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সাবেক সভাপতি ও পুরান বাজার ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মো.তারিক উল্লা , অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার,সাবেক ফরিদগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ও সাবেক বাকশিস কেন্দ্রিয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রুহুল আমিন, বাকশিস সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সাফায়েত আহমেদ ভূঁইয়া, বাকশিস কেন্দ্রিয় কমিটির শিক্ষা ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ও জিলানী চিশতী কলেজের অধ্যক্ষ মো.হারুন-অর রশিদ এবং মতলব সরকারি কলেজে অধ্যাপক ও কেন্দ্রিয় কমিটির সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মো.মোশারফ হোসেন।

প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বে সভাপতিত্ব করেন ও স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ ড. আলমগীর কবির পাটওয়ারী। সভায় অতিথিদের সবাইকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয় ।

চাঁদপুরের অনেক বিদগ্ধ ও বেসরকারি স্কুল,কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষকদের দাবি আদায়ে,শিক্ষকদের পেশাগত মান বাড়াতে এবং সর্বোপরি শিক্ষার সার্বিক উন্নয়নে এ পর্যন্ত যাঁরা কাজ করেছেন তাঁদের অনেকেই মৃত্যুবরণ করেছেন বা অবসর গ্রহণ করেছেন কিংবা বয়সের কারণে অসুস্থতায় রয়েছেন তাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান।

সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে শিক্ষক আন্দোলনের অতীত,বর্তমান ও ভবিষৎ-এর সার্বিক পরিস্থিতি মূল্যায়ন, আসন্ন বাকশিস সম্মেলনের গুরুত্ব অনুধাবন ও আগামি দিনের সঠিক নেতৃত্ব প্রদানে নতুন মুখ চিহ্নিতকরণে চাঁদপুর জেলার ৪৮টি বেসরকারি কলেজের সকল শিক্ষকগণের উপস্থিতিতে হাজীগঞ্জের দেশগাওঁ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আজহারুল কবিরকে সভাপতি, সদরের খেরুদিয়া দেলোয়ার হোসেন স্কুল ও কলেজের ভার প্রাপ্ত অধ্যক্ষ মেজবাহ উদ্দিন ভুইয়াকে সাধারণ সম্পাদক ও গল্লাক আদর্শ ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক খোরশেদ আলম চৌধুরীকে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচন করে ঘোষণা দেন।

শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন – মাধ্যমিক স্তরের সভাপতি প্রধান শিক্ষক মো আব্বাস উদ্দিন,প্রধান শিক্ষক মো. ইলিয়াছ মিঞা ,প্রধান শিক্ষক মো.আবুল কাসেম,সহকারী শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রিয় নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন।

অনূভুতি ব্যক্ত করে বক্তব্য দেন নতুন সভাপতি দেশগাওঁ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আজহারুল কবিরকে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সদরের খেরুদিয়া দেলোয়ার হোসেন স্কুল ও কলেজের ভার প্রাপ্ত অধ্যক্ষ মেজবাহ উদ্দিন ভুইয়া সাধারণ সম্পাদক ও গল্লাক আদর্শ ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক খোরশেদ আলম চৌধুরী। সম্মেলনে জেলার প্রায় ৪০টি কলেজের অধ্যক্ষ ও অধ্যাপকগণ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন: