শিক্ষামন্ত্রীকে নিয়ে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজ শিক্ষক পরিষদের তীব্র নিন্দা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ॥
২৮ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার ‘চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়’-এর ভূমি অধিগ্রহণ সংক্রান্ত বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি এবং তাঁর পরিবারকে জড়িয়ে যে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হয়েছে তার প্রতিবাদে পুরানবাজার ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক পরিষদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদারের সভাপ্রধানে সভায় শিক্ষামন্ত্রী এবং তাঁর পরিবারকে নিয়ে যে অপপ্রচার করা হয়েছে তার নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

বক্তারা বলেন, যে মানুষটি বিগত ১৩ বছর চাঁদপুরের মানুষের জন্যে নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন, কারো কন্যারূপে, কারো বোনরূপে কারো মাতৃরূপে নিজেকে সমর্পণ করেছেন তাঁকেই মিথ্যা অপবাদ দেয়া হলো। যে মানুষটা সততাকে সঙ্গী করে এতোটা পথ পাড়ি দিয়েছেন। আজ তাঁকেই মিথ্যা আঘাত করে এভাবে জর্জরিত করা হলো। যে মানুষটা রাজনৈতিক শিষ্টাচারের আইকন, তাঁকে আঘাত করা হলো। যে মানুষটা শত্রুকেও অবলীলায় আপন করে নেন, তাঁকে আঘাত করা হলো। আশ্রয়হীনকে আশ্রয়দান, অন্নহীনকে অন্ন দান করে যে মানুষটি, তাঁকে আঘাত করা হলো। যে মানুষটা এই করোনাকালে নিজের সঞ্চিত অর্থ দিয়ে মানুষের সেবা করার জন্যে পাশে দাঁড়িয়েছেন তাঁকে আঘাত করা হলো। যে মানুষটি জাতির পিতার কন্যার অতি বিশ্বস্ত তাঁকে আঘাত করা হলো।

বক্তারা ষড়যন্ত্রকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের মনে রাখা উচিত ছিলো ডাঃ দীপু মনি এ রাষ্ট্রের সম্পদ। সৎ মানুষগুলোর উপর যদি এভাবে কলঙ্ক দেয়ার চেষ্টা করেন তাহলে এ সমাজে আর সৎ মানুষ জন্ম নিবে না। গত এক যুগ ধরে যে মানুষটি চাঁদপুরের মানুষের সুখে-দুঃখে নিজেকে জড়িয়েছেন। চাঁদপুরে মানুষকে ভালো রাখার জন্যে যে পরিমাণ পথে তিনি হেঁটেছেন কোনো পরিভ্রাজকও এতোটা পথ হাঁটেননি। আজ একটি গোষ্ঠী হীন স্বার্থে সততায় অনন্য সেই মানুষটির গায়ে কলঙ্ক দিতে চাইলেন। আমরা নিন্দা জানানোরও ভাষা হারিয়ে ফেলেছি।
পুরানবাজার কলেজ শিক্ষক পরিষদ এমন হীন কাজ থেকে বিরত থাকার জন্যে অনুরোধ করা হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন কলেজ শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌসী বেগম, অধ্যাপিকা মাসুদা খানম, সাইফুল ইসলাম, শামছুল আলম, হাবিবুর রহমান পাটওয়ারী, নূপুর বিশ্বাস, শাহানারা বেগম প্রমুখ।

শেয়ার করুন: