সকল উদ্যোক্ততাকে একটি প্লাটফর্মে রাখা হবে : এটুআই প্রকল্প পরিচালক

নিজস্ব প্রতিবেদক॥

জেলা পর্যায়ে জেলা-ব্র্যান্ডিং কার্যক্রমের সক্ষমতা উন্নয়ন, সম্প্রসারণ ও গতিশীলতা আনয়নের লক্ষে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা জুম মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩ জুলাই মঙ্গলবার সকাল ৯টায় এটুআইয়ের উপ-সচিব শামসুজ্জামান খানের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।

জেলা প্রশাসক তাঁর পর্যটনের গৃহিত কার্যক্রম তুলে ধরেন। পর্যটনের জন্যে চাঁদপুরে যে সম্ভাবনা এটি ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে।এখানে একটি সমস্যা আছে সেটা পর্যটন কেন্দ্র মোলহেডের জায়গাটি রেলওয়ে কর্তৃপক্ষে সেহেতু এখানে কিছু করতে গেলে রেলওয়ে সেটি দিচ্ছে না। আবার রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ বলছে তারা এখানে স্টেশন করবেন।

তিনি জানান,এখানে রেলওয়ে যদি ভারী কিছু এখানে তাহলে মোলহেডসহ চাঁদপুর শহর হুমকির মুখে পড়বে।

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন এটুআইয়ের প্রকল্প পরিচালক ড. আব্দুল মান্নান, পিএএ। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, জেলা ব্র্যান্ডিং পরিচয় করার জন্য ব্রুশিয়ার, থিম সং, অডিও ভিজুয়্যাল, এবি, বিলবোর্ড তৈরি করে রাখতে পারেন। ই-কমার্স ব্যবসার যারা জড়িত তাদের ট্রেনিংয়ের জন্য আয়োজন করা যেতে পারে। সকল উদ্যোক্ততাকে একটি প্লাটফর্মে রাখা হবে। টুরিস্ট যারা আসবে তাদের থাকা খাওয়ার উত্তম ব্যবস্থা রাখতে হবে।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব ও এটুআইয় প্রকল্পের যুগ্ম প্রকল্প পরিচালক দেওয়ান মোঃ মুহাম্ম হুমায়ুন কবীর, তিনি চাঁদপুর সম্পর্কে দুটি মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশন এবং ব্র্যান্ডিংয়ের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

এছাড়া বক্তব্য রাখেন সাহিত্য একাডেমীর মহাপরিচালক কাজী শাহাদাত, প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, বিশিষ্ট ছড়াকার ও প্রাবন্ধিক ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়–য়া, চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি তমাল কুমার ঘোষসহ অন্যরা।

বক্তারা বলেন, চাঁদপুর জেলা ব্র্যান্ডিংয়ের রূপকার তৎকালীন জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডলকে যেনো আগামীতে ব্র্যান্ডিং কার্যক্রমের সংযুক্ত রাখা হয়। এছাড়াও চাঁদপুর জেলা যেহেতু নদী কেন্দ্রিক তাই এখানের পর্যটনের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। সেহেতু পর্যটকরা এসে যেনো এখানে ইলিশের স্বাদ নিতে পারেন এবং সারাদিন ভ্রমণের পাশাপাশি

উপস্থিত ছিলেন এটুআইয়ের যুগ্ম পরিচালক সেলিনা পারভেজ,টুরিজ্যম বোর্ডের পরিচালক ও যুগ্ম সচিব আবু তাহের মোঃ জাবের, উপ-সচিব দৌলতুজ্জামান,আয়েশা মোস্তফা,চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেন,সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহানাজ,হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার,সাহিত্য একাডেমীর মহাপরিচালক কাজী শাহাদাত,প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী,সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, বিশিষ্ট ছড়াকার ও প্রাবন্ধিক ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়–য়া,চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি তমাল কুমার ঘোষ, প্রিয় দোকানী ডট কম-এর স্বত্তাধিকারী ও ইলিশবাড়ি চাঁদপুরের গ্রাফিক্স ডিজাইনার উজ্জ্বল হোসাইন, ব্র্যান্ডিং লেখক কাদের পলাশ,জেলা ব্র্যান্ডিং উদ্যোক্তা এইচএম জাকির হোসেন,রসুইঘরের স্বত্বাধিকারী জাহিদুল হক মিলন,ওমেন এন্ড ই-কমার্স চাঁদপুর ডিস্ট্রিক্ট হেড নাদিয়া রওশন,নগদ বাজারের স্বত্বাধিকারী ইসমাইল হোসেন,নীলা রুম্পার পীঠাঘরের নীলা রহমান,চাঁদপুর ফ্যাশন হাউজের স্বত্বাধিকারী নাছরিন আক্তার, বিভিন্ন উপজেলার ইউডিসিগণ।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *