সমবায়ের যাদু স্পর্শে সুপ্ত গ্রাম বাংলাকে জাগিয়ে তুলতে হবে:পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী

মনিরা আক্তার মনি:

‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন’ এ প্রতিপাদ্য নিয়ে সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় জাতীয় সমবায় দিবস উদযাপন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি, আলোচনা সভা ও ঋণের চেক বিতরণ করা হয়।

শনিবার দুপুরে উপজেলা প্রশাসন ও সমবায় কার্যালয়ের আয়োজনে জাতীয় ও সমবায় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসটির কার্যক্রম শুরু হয়।

উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) আফরোজা হাবিব শাপলার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ভার্চ্যুয়ালে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আইনজীবী নুরুল আমিন রুহুল।

আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা ফারুক আহমেদ, উপজেলা যুবলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আইনজীবী মহসিন মিয়া মানিক, বিআরডিবি’র সভাপতি রাসেল ফয়েজ আহমেদ শাহীন, ছেঙ্গারচর পৌর বাজার বণিক সমবায় সমিতির সভাপতি হাজী মনির হোসেন বেপারী, শাপলা বহুমুখী সমবায় সমিতির বাবুল হোসেন।

প্রতিমন্ত্রী ড. শায়সুল আলম বলেছেন, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সমবায়ের যাদু স্পর্শে সুপ্ত গ্রাম বাংলাকে জাগিয়ে তোলার আহবান জানিয়েছিলেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর ঘোষণা অনুযায়ী সমবায় ভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য কাজ করছেন।

তিনি বলেন, সমবায় একটি প্রাচীন অর্থনৈতিক ব্যবস্থা। সামাজিক তথা জাতীয় উন্নয়ন ও অগ্রগতি অর্জনে সমবায় একটি পরীক্ষিত সফল পদ্ধতি। একক প্রচেষ্টায় যা করা সম্ভব নয় সমবায় পদ্ধতিতে তা সহজেই করা সম্ভব। তাই প্রাচীনকাল থেকেই সমবায় বিশ্বব্যাপী জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের অন্যতম কার্যকর কৌশল হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

আইনজীবী নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, সমবায়ের সফলতার জন্য সৎ ও যোগ্য নেতৃত্বের পাশাপাশি পারস্পরিক সহযোগিতা ও সহমর্মিতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই সমবায় সমিতি গঠনে এবং নের্তৃত্ব নির্বাচনে সমবায়ীদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *