স্ত্রীর অধিকার আদায়ে শ্বশুর বাড়িতে অনশন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৬নং রুপসা (দক্ষিণ) ইউনিয়নের চর মুঘূয়া গ্রামে স্ত্রীর অধিকার আদায়ে অনশন করেছে স্বনালী আক্তার বৃষ্টি( ১৯)।

সোনালী স্বনালী আক্তার বৃষ্টি একই গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম লিমন গত ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ আদালতের মাধ্যমে পরিবারের অমতে বিয়ে করে। বিয়ের পর স্ত্রী স্বনালী আক্তার বৃষ্টি ও সাইফুল ইসলাম লিমন নারায়নগঞ্জে বসবাস শুরু করেন। দেড়মাস যাবত স্বামী সাইফুল ইসলাম লিমনের কোন খোজঁ খবর নাপেয়ে বাবা মার সাহায্যে গ্রামের বাড়িতে ফেরত আসে। একদিকে স্বামীর সাথে যোগাযোগ নেই অন্যদিকে বাবা মায়ের চাপ,নিরুপায় হয়ে ১৯ মে বৃহস্পতিবার স্বামী সাইফুল ইসলাম লিমনের বাড়িতে অবস্থান করে।

স্বনালী আক্তার বৃষ্টি জানান,তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে মারধর করে,তাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে এবং প্রাননাশের হুমকি দিলে ৯৯৯ জরুরি আইনী সহায়তা পেতে ফোন করে।

৯৯৯ ফোন পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানা এস আই একরামুল হাসান সঙ্গীয় ফোর্সে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। পুলিশ পরিদর্শক একরামুল জানায়, যেহেতু তারা কোর্টের মাধ্যমে বিবাহ সম্পন্ন করেছে এবং বৈধতা রয়েছে সেক্ষেত্রে সে চাইলে আমরা আইনি সহায়তা দিতে বাধ্য।

সাইফুল ইসলাম লিমনের মা রিনা বেগম জানান, আমরা আজই ছেলেকে তের্জ্যপুত্র ঘোষনা করব তবুও তাকে মেনে নিবনা। তাদের বিয়ের বিষয়ে পূর্বে থেকে জানেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন,তাদের (ছেলে মেয়ের) আগে থেকেই সম্পর্ক ছিলো আমরা মেনে নানেওয়াতে তারা পালিয়ে বিয়ে করে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শরীফ হোসেন বলেন, আমরা উভয়কে সমঝোতার জন্য আহ্বান করেছি, মেয়ের পরিবার সমঝোতা আগ্রহী হলেও ছেলের পরিবার আগ্রহী হয়নি। ফলে সমঝোতা সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করুন: