স্পীডবোড আত্মসাতের মামলায় জহিরাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম কারাগারে

নিজস্ব প্রতিনিধি ॥

মতলব উত্তর উপজেলায় ব্যাক্তি মালিকানা স্পীডবোড আত্মসাৎ ও ভাংচুরের মামলায় জহিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সেলিম গাজীসহ ৪ আসামীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

সোমবার (৩০ মে) দুপুরে চাঁদপুরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজেস্ট্রট মো. কামাল হোসাইনের আদালত এই আদেশ দেন।

চেয়ারম্যান ছাড়া বাকী তিন আসামী হলেন-জহিরবাদ ইউনিয়নের মৃত হাকিম বেপারীর ছেলে কাজল মেম্বার,আসাদ মেম্বারের ছেলে মো. শফিক ও বালুচর এলাকার গিয়াস উদ্দিন গাজীর ছেলে গাজী নাজমুল। মামলার বাদী একই উপজেলার মোহনপুর এলাকার কাজী আবুল হোসেনের ছেলে ব্যবসায়ী কাজী আব্দুল মতিন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০২১ সালের ২৪ জুলাই বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৪টার দিকে চেয়ারম্যান সেলিম গাজী ও তার লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে মতিনের ব্যাক্তিগত মালিকানাধীন বালু মহালের মালামাল ও লোকজন আনা-নেয়ার কাজে নিয়োজিত স্পীডবোড ভাংচুর ও ভয় দেখিয়ে নিয়ে যায়। এই ঘটনায় কাজী আব্দুল মতিন মতলব উত্তর থানায় পরদিন ২৫ জুলাই বতমান জহিরাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সেলিম গাজীসহ ১২জনকে আসামী করে ১৪৩/১১৪/৪২৭/৪৩৯ /৫০৬ (২) ধারার অপরাধের অভিযোগ এনে মামলা করেন।

মামলার বাদী কাজী আব্দুল মতিন বলেন, মামলা দীর্ঘ একবছর চলমান থাকা অবস্থায় তারা আদালতে হাজির হয়নি। আজকে চেয়ারম্যান সেলিম গাজীসহ এজহারভুক্ত আরো ৩ আসামী স্বেচ্ছায় আদালতে হাজিরা দিতে আসেন এবং জামিনের জন্য আবেদন করেন। কিন্তু আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এই মামলার আরো ৮ জন আসামী পলাতক রয়েছেন।

আসামী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন মো. সেলিম মিয়া।

শেয়ার করুন: