স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করবে ছাত্রলীগ : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি ॥

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি বলেছেন, ৭৫ বছর পূর্বে আওয়ামী লীগের পূর্বে ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেন টুঙ্গী পাড়ার খোকা পরবর্তীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা লাভ করে, সেই বছর মার্চ মাসেই ভাষা আন্দোলনের সূচনা হয় ছাত্রদের আন্দোলনের মধ্যদিয়ে। স্বাধীকার ও স্বাধীনতার আন্দোলনে বিশাল ভূমিকা ছিল ছাত্রলীগের।

তিনি বাংলাদেশ ছাত্র লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে আলোচনা সভায় বুধবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ছাত্রলীগ একটি আবেগ ঐতিহ্যের সংগঠন। মুক্তিযুদ্ধেও ছিল ছাত্রলীগের অনেক অবদান। সকল ভোটের ও ভাতের অধিকার আদায়ে ছাত্রলীগ ভুমিকা রেখেছে। অতিসাম্প্রতিক করোনাকালে ছাত্রলীগের হাজার হাজার কর্মী মাঠে কাজ করেছে। বন্যায় ডুবে যাওয়া কৃষকের ধান কাটতে এগিয়ে আসে ছাত্রলীগ। শিক্ষা শান্তি ও প্রগতির বানী নিয়ে দৃপ্তপায়ে এগিয়ে চলছে ছাত্রলীগ। নিজেদের দক্ষ, শৃজনশীল হিসাবে গড়ে তুলবে ছাত্রলীগ। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে কাজ করবে ছাত্রলীগ।

মন্ত্রী বলেন, ৯০ গণআন্দোলনে ছাত্রলীগের ছিল উজ্জল ভূমিকা। ১৯৪৮ সলের এদিনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ও তার হাতে গড়ে উঠেছিল ছাত্রলীগ। ৭৫ বছরের পথ পাড়ি দিয়ে আজ ২০২৩ সালে জন্মদিন পালন করছে ছাত্রলীগ। আবেগ, অনুভূতি, ভালবাসা, প্রত্যাশা ইতিহাস ও ঐতিহ্যের নাম ছাত্রলীগ। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আমাদের অহংকার। ছাত্রলীগের ঐতিহ্য অনেক।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. জহির উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল, জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. রনজিৎ রায় চৌধুরী, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান, জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, মোহাম্মদ আলী মাঝি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি অ্যাড. হেলাল হোসাইন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ আব্দুল মোতালেব, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এবিএম রেজওয়ান, চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সোলায়মান হোসেন রাজু, সহ-সভাপতি হাসান আল মামুন খান, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মুহাম্মদ সোহেল রানা, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম রবিন পাটওয়ারী, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুল হাসান সাদ্দাম, সাধারণ সম্পাদক আল হেলাল ইনু, চাঁদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ সোহেল হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সাইফ হোসাইনসহ আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের সাবেক বর্তামান নেতৃবৃন্দ এবং হাজার হাজার নেতা-কর্মী।

অনুষ্ঠানের শুরুতে নেতা-কর্মীরা খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে কলেজ মাঠে আসেন। একই সময় সব নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে জন্মদিনের কেক কাটেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি। এছাড়া ৭৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়। পরে চাঁদপুর সরকারি কলেজ থেকে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালি বের হয়।

উল্লেখ্য : এদিন বিকালে চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে পতাকা ও বেলুন উত্তোলন, পায়রা উড়ানো, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, কেক কাটা, আলোচনা সভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া দেশাত্ববোধক গান, আবৃতি ও নৃত্যপরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে মন্ত্রী ছাত্রলীগের সদস্যদের সাথে সেলফিসহ নানাভাবে আনন্দে মেতে উঠেন।

শেয়ার করুন: