হাজীগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ৫ টি ঘর ভস্মিভূত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় ৫ টি ঘর ভস্মীভূত হয়েছে। রবিবার রাত ২টায় বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে মুহূর্তের মধ্যে পুড়ে চাই হয়ে যায়।

৫ জুন রোববার দিবাগত রাতে হাজীগঞ্জ উপজেলার বড়কুল পূর্ব ইউনিয়নের মধ্য বড়কুল তোরাবালী বেপারী বাড়ির প্রবাসী সুমনের ঘরের এককোণ থেকে অগ্নিকান্ডের বিস্তার ঘটে। এরপর আগুনের লাল শিখা ছড়িয়ে পড়ে চার পাশ। পুড়ে যায় ওমান প্রবাসী হানিফ, টাইলস মিস্ত্রি আরিফ ও কৃষক মোহাম্মদ মিয়ার ঘর।

গভির রাতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট। দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

সোমবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো জাকির হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান মো. মজিবুর রহমান, ইউপি সদস্য মো. জামাল হোসেন।

প্রাথমিক ভাবে প্রশাসনের কাছে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর।

টাইলস্ মিস্ত্রী আরিফ বলেন, রবিবার রাতে নিজের চোঁখের সামনে একের পর এক ঘর পুড়ে যাওয়ার দৃশ্য চোঁখের সামনে বার বার ভেসে উঠে। নিঃস্ব হয়ে যাওয়ার খবরে নিস্তব্ধ তার পুরো পৃথিবী। কখনও ভাবতে পারেনি এভাবে হারাতে হবে জীবনে উপার্জন করা সব কিছু।

ভয়াবহ এই রাতে নিজের সব কিছু হারিয়ে কান্নায় কন্ঠে তাহেরা বেগম বলেন, আগুন দেখে সব কিছু ছেড়ে কোনোমতে নিজের জীবন বাঁচাতে ঘর থেকে বেরিয়ে পড়েন সবাই।
ক্ষতিগ্রস্ত সুমন, হানিফ ও আরিফের মা, স্ত্রী ও সন্তানরা মিলে ১৩ সদস্যের পরিবার। দুপুরে একবেলা খাবার গোসল করে পরনের কাপড় পরিবর্তন করার একমাত্র আশা ভরসা এখন তাদের প্রয়োজন সহযোগিতার।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সাথে টেলিকনফারেন্সে কথা বলেন চাঁদপুর-৫ হাজীগঞ্জ শাহরাস্তি আসনের সংসদ সদস্য, মহান মুক্তিযুদ্ধের ১নং সেক্টর কমান্ডার, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর অবসর প্রাপ্ত রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম। এ সময় তিনি সহযোগিতার কথা বলেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published.