হাজীগঞ্জে তিন মামলায় দুই হাজার আসামী : আটক ৭

স্টাফ রিপোটার :

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে মন্দিরে হামলা ও পুলিশ জনতার সংঘর্ষের ঘটনায় এ পর্যন্ত তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে। তিন মামলায় দুই হাজার জনকে আসামী করা হয়। শুক্রবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনুর রশীদ।

তিনি বলেন, পুলিশ বাদী হয়ে দুইটি মামলা করা হয়। অপরটি মন্দির ভাংচুরের দায়ে করা হয়েছে। এই তিন মামলায় দুই হাজার জনকে আসামী করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ৭ জনকে আটক করা হয়।

কুমিল্লায় মন্দিরে পবিত্র কুরআন অবমাননার প্রতিবাদে বুধবার রাতে একটি বিক্ষোভ মিছিল হাজীগঞ্জ বাজারে আসে। ওই সময় এশার নামাজ শেষে মুসল্লীদের একটা অংশ মিছিলে যোগ দেয়। হাজীগঞ্জ বাজারের জিউর আখড়ায় পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের সাথে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিতে ৪ জন নিহত হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে হাজীগঞ্জ বাজারের কয়েকটি পূজা মন্ডপ হামলার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ এমপি। তিনি হাজীগঞ্জ বাজারের লক্ষী নারায়ণ জিউর আখড়ায় হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত পূজা মন্ডপ পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের বলেন, এই অপশক্তিকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। সুস্থ্য ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিরা এমন হামলা করতে পারে না। অপশক্তিরাই হামলা করেছে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

ওইসময় চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় একাধিক মামলা হবে। এখন পর্যন্ত হাজীগঞ্জে ৭ জন, কুমিল্লায় ৪৩সহ চট্টগ্রাম রেঞ্জে ৭৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ জানান, এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে প্রধান করে ৫ সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *