হাজীগঞ্জে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ আহত সাগরের মৃত্যু

হাজীগঞ্জ প্রতিবেদক ॥

হাজীগঞ্জে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত সাগর নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন সাগরের বাবা মোঃ মোবারক হোসেন।

তিনি জানান, বুধবার(১৩ অক্টোবর) রাতে তার ছেলে হাজীগঞ্জ বাজারে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়। পরে আলীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে রেফার করা হলে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় তার মৃত্যু হয়।

সাগরের মা আমেনা বেগম বলেন, পাঁচ সন্তানের মধ্যে সাগর সবার ছোট। সাগর হাজীগঞ্জ উপজেলার বড়কুল ইউনিয়েনের নোয়াদ্দা সুমন মাঝির মেয়েকে বিয়ে করেন। তার এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

জানা গেছে, তারা দীর্ঘদিন ধরে হাজীগঞ্জ বাজার ডিগ্রি কলেজ রোড সংলগ্ন এলাকায় বসবাস করে আসছেন। তাদের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার ইব্রাহিমপুর গ্রামের খন্দকার বাড়ি। সাগর পেশায় একজন ট্রাক চালক।

সাগরের মা আরো জানান, ডিগ্রি কলেজ রোডের রাসেল নামের এক যুবক তাকে ফোন করে মিছিলে নেয়।হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনুর রশিদ গুলিবিদ্ধ সাগরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য কুমিল্লায় দূর্গা পূজা মন্ডপে পবিত্র কুরআন অবমাননার প্রতিবাদে গত ১৩ অক্টোবর বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় হাজীগঞ্জ বাজার মিছিল বের হয়। এ সময় বিক্ষুব্ধ লোকজন স্থানীয় গোপাল জিউর মন্দিরে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক কিশোরসহ ৪ জনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় । এছাড়া পুলিশসহ আহত হয় অন্তত ৩০ জন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *