হাজীগঞ্জ বাজারে হকার পূণর্বাসন এবং যানজট নিরসনে সবার সহযোগিতা চাই: জেলা প্রশাসক

হাজীগঞ্জ প্রতিবেদক ॥

হাজীগঞ্জ হলো চাঁদপুর জেলার হৃদপিণ্ড, আর হাজীগঞ্জ পৌরসভা হলো তার অক্সিজেন বলে মন্তব্য করেছেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান। তিনি পৌরসভার কাজের প্রশংসা করে বলেন,আগামী ৫০ বা ১’শ বছর পর কি হবে সে পরিকল্পনা হাতে নিয়ে পৌরসভার উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) সকালে হাজীগঞ্জ পৌরসভা পরিদর্শন শেষে কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

ডিসি হাজীগঞ্জ বাজারের হকার পূণর্বাসন, বাজারের যানজট নিরসনে পৌরসভার মেয়র সহ কাউন্সিলরবৃন্দের সহযোগিতা চান।

জেলা প্রশাসক বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়ণমূলক কাজ প্রশ্নবিদ্ধ করতে একটি স্বার্থন্বেষী মহল চেষ্টা করছেন। জনপ্রতিনিধিরা সেই দিক লক্ষ রেখে জনগণকে বুঝাতে হবে। বর্তমান পরিস্থিতিটা বৈশ্বিক কারণে দেশে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। সহসায় এ পরিস্থিতি থেকে দেশ উত্তোরণ ঘটবে।

তিনি বলেন, ইসলাম আমাদের ধর্ম। কোন ধর্ম নিয়ে বাড়া-বাড়ি করতে ইসলামে বিধিনিষেধ রয়েছে। ইসলাম ধর্ম নিয়ে যদি কেউ কটুক্তি করে তাহলে মুসলমান হিসেবে আমরা প্রতিবাদ করি। তবে এ প্রতিবাদের মাঝে কিছু দুষ্টচক্র প্রবেশ করে আইনশৃঙ্খলা বিঘ্ন ঘটানোর চেষ্টা করে জনপ্রতিনিধিরা সে দিকে লক্ষ রাখবেন।

এর পূর্বে সকালে তিনি পৌরসভায় এসে পৌঁছালে তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান পৌরসভার মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন।

পরে জেলা প্রশাসক ও পৌর মেয়র ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব’ চত্ত্বরে ফুল দিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর পৌর সভাকক্ষে আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে তিনি পৌরসভার বিভিন্ন ধরনের উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের প্রশংসা করেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান পৌরসভার দাপ্তরিক কাজ পরিদর্শন এবং পৌরসভার পরিদর্শন কার্যক্রম বইয়ে স্বাক্ষর করেন। পরিদর্শনকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাশেদুল ইসলাম ও পৌর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ ইনামুল হাছান উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনায় সভায় পৌর প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাহিদুল আযহার আলম বেপারী, আজাদ হোসেন ও রোকেয়া বেগম,সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর মমতাজ বেগম মুক্তা, মিনু আক্তার ও নাজমুন নাহার ঝুমু উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় কাউন্সিলর মাইনুদ্দিন মিয়াজী,আলাউদ্দিন মুন্সী,মোহাসীন ফারুক বাদল,সুমন তপদার, মো. শাহআলম, কাজী মনির হোসেন, হাজী কবির হোসেন, সাদেকুজ্জামান, বিল্লাল হোসেন,মো. শাহ আলমসহ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন: