হাজীগঞ্জে কিশোরীর লাশ উদ্ধার

হাজীগঞ্জ প্রতিবেদক:

হাজীগঞ্জ উপজেলার ৪নং কালচোঁ ইউনিয়নের রামপুর মজুমদার বাড়ীতে কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে মজুমদার বাড়ীর প্রবাসী মফিজুল ইসলামের ছোট মেয়ে তানিয়া আক্তার (১৯)।

শনিবার দুপুরে তার মৃতদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ থানা উপ-পরিদর্শক(এসআই) মো. হারুন ও ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা স্বপন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বছর খানেক আগে উপজেলার বাজনাখাল এলাকায় তার বিয়ে হয়। সেখান থেকে তালাকপ্রাপ্ত হয় ওই কিশোরী। শনিবার সকালে সে একই বাড়ির প্রবাসী সফিউল্লাহর বসত ঘরে গলায় ফাঁস দেয়।

হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই বাড়ীর প্রবাসী সফিউল্ল্যার বসত ঘরের জানালার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

প্রবাসী সফিউল্ল্যার স্ত্রী সালমা আক্তার জানান, কয়েকদিন ধরে তার ঘরে ঘুমায় তানিয়া। শনিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে দাঁত ব্রাশ করতে তাদের ঘরে যায়। সেখান থেকে কখন যে এসে ওই ঘরের একটি কক্ষে ঢুকে দরজা আটকিয়ে দেয়। হঠাৎ কক্ষের দরজা বন্ধ দেখে জানালা দিয়ে তানিয়ার ঝুলন্ত লাশ দেখা যায়। পরে ডাক-চিৎকার ও তার বোনকে ডেকে এনেছি।

কিশোরীর বোন জান্নাত আক্তার বলেন, বাড়ীর লোকজন এসে দরজা ভেঙ্গে তানিয়ার ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখে।

শেয়ার করুন: