৫নং ওয়ার্ডে শফিকুর রহমান ভূইয়ার দিনভর গণসংগোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আসন্ন চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন আগামী ২৯ মার্চ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। প্রতীক পাওয়ার পর থেকেই বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি মনোনীত চাঁদপুর পৌরসভার ধানের শীষ প্রতীকে মেয়রপ্রার্থী শফিকুর রহমান নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন।

১২ মার্চ সকাল ৯টা থেকে তিনি দলীয় নেতাকর্মী ও স্থানীয় মুরব্বীদের সাথে নিয়ে ৫নং ওয়ার্ডের রঘুনাথপুর ভাঙ্গাপুল এলাকা থেকে প্রচারণা কাজ শুরু করেন। এ সময় তিনি বেশ কয়েকটি পথসভায় মিলিত হন। উত্তর রঘুনাথপুর বকাউল বাড়ি, শেখ বাড়ি ও মজুমদার বাড়ির উঠান বৈঠক করেন। এছাড়া মাদ্রাসা রোড ও ওয়াপদা সড়ক সংলগ্ন বালুর মাঠে উঠান বৈঠকে মিলিত হন।

এ সময় তিনি বলেন, আমি ২০০৫ সালে চাঁদপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে ২০১০ পর্যন্ত আপনাদের সেবা করেছি। আমি আপনাদের জানমাল হেফাজত করার চেষ্টা করেছি। আমি চেয়ারম্যান থাকাকালে এই ৫নং ওয়ার্ডের রাস্তা-ঘাট তৈরি করেছি। আমি এই এলাকার উন্নয়ন করে আপনাদের চলাচলের ব্যবস্থা করেছি। চাঁদপুর পৌরসভা যদি প্রথম শ্রেণির পৌরসভা হয়ে থাকে তবে আপনারা ৫নং ওয়ার্ডবাসী প্রথম শ্রেণির কোন সুযোগ সুবিধাই ভোগ করতে পারেনি। আপনারা যদি আগামী ২৯ মার্চ আমাকে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন তাহলে আমি আপনাাদের এই ৫নং ওয়ার্ডে গ্যাস, পানির সমস্যা দূর করব।

তিনি আরও বলেন, ইভিএম পদ্ধতিতে এ বছর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আপনারা সকাল সাড়ে ৮টার মধ্যে ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হবেন। আপনারা উপস্থিত হয়ে এই ইভিএম পদ্ধতির মাধ্যমে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে আপনার নাগরিক দায়িথ্ব পালন করবেন। ইভিএম পদ্ধতির মাধ্যমে ভোট চুরি করা বন্ধ হবে। আপনারা যদি ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হন তাহলে কারও সাধ্য নেই আপনার ভোট অন্যে দেওয়া। আপনারা ভোট কেন্দ্রে গেলে স্মার্ট কার্ড সাথে নিয়ে যাবেন। আপনার ভোট আপনি প্রদান করবেন। যদি কোন অপশক্তি আপনাকে ভোট প্রদানে বাধা প্রদান করে তাহলে আমরা এর জবাব দিব। আমাদের জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিটি নেতাকর্মী ওইদিন সকাল থেকে ভোট গননা পর্যন্ত কেন্দ্রে অবস্থান করবে। এই ভোট যুদ্ধ হল আমার মা, গণতন্ত্রের মা বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে। তাকে মুক্ত করার জন্যই আমরা চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। আমাদের বিজয় নিশ্চিত হলে আমরা চাঁদপুর থেকেই বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তির আন্দোলন শুরু করব। আপনারা যারা মা বোন রয়েছেন তারা ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। মেয়র প্রার্থী সফিকুর রহমান ভূইয়ার পাশাপাশি আপনাদের ওয়ার্ডের বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী বাচ্চু হাজীর ব্রীজ প্রতীকে ভোট দিবেন। আজ চাঁদপুরে বিএনপি ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। এখন আর পিছু হটার পথ নেই। আজকে আমরা শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আমাদের নির্বাচনের দিন ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত থাকতে। মামলা হামলা দিয়ে, গত নির্বাচনে আমাদেরকে দূর্বল করা হয়েছিল। এ বছর আর মামলা হামলার দিন নেই। রঘুনাথপুর দিন ব্যাপী ঘুরে দেখেছি এখানে সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। আমরা এই ঐক্যবদ্ধ হয়ে বিএনপিকে আরও শক্তিশালী করব। ২ মার্চ ধানের শীষে ভোট দিয়ে আমরা বিজয় নিশ্চিত করে ঘরে ফিরব।

৫নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আলমগীর খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এমদাদ হোসেনর পরিচালনায় পথসভাগুলোতে আরও বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মনির চৌধুরী, চাঁদপুর সরকারি কলেজের সাবেক জিএস শাহনেওয়াজ খান, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাচ্চু হাজী, ৫নং ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতি মোশাররফ হোসেন লিটন, ওয়ার্ড বিএনপির সহ-সভাপতি জাকির হোসেন মজুমদার, জেলা শ্রমিকদলের সহ-সভাপতি আব্দুল হাই দুলু, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য মীর আনোয়ার হোসেন বাচ্চু, ছাত্রদল নেতা সফিউদ্দিন বাবলু, ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি ফরিদ মিয়াজী কালু, সাধারণ সম্পাদক মামুন মিয়াজী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক খান, ৫নং ওয়ার্ড শ্রমিক দলের সভাপতি শহিদুল্লাহ গাজী, সাধারণ সম্পাদক খোকন খান, ওয়ার্ড ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান, ওয়ার্ড মহিলাা দলের নেতৃ রোকেয়া আক্তার মনি প্রমুখ।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *